রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০৫ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
চট্টগ্রামব্যাপি দৈনিক প্রিয় চন্দনাইশে নিয়োগ চলছে ।আজই আপনার সিভি আমাদের মেইল করুন । আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা ও সংক্রমণ প্রতিরোধে চন্দনাইশ থানা পুলিশের তৎপরতা

সংবাদ দাতা
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯৮ জন পড়েছেন

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা ও সংক্রমণ প্রতিরোধে চন্দনাইশ থানা পুলিশের তৎপরতা

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা ও সংক্রমণ প্রতিরোধে আজ দেশজুড়ে ৮ দিনের ‘কঠোর লকডাউন’ শুরু হয়েছে। বুধবার (১৪ এপ্রিল) ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত জনগণকে চলাচলে বিধি-নিষেধ মানতে বাধ্য করতে মাঠে রয়েছেন পুলিশ প্রশাসন এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তারও ধারাবাহিকতায় আজ ১৪ এপ্রিল বুধবার লকডাউনের ১ম দিনে ভোর থেকে চন্দনাইশে গাছবাড়িয়া কলেজ গেইট,খাঁনহাট, দোহাজারী, বাগিছাহাট রৌশনহাটসহ বিভিন্ন এলাকায় দেখা যায় পুলিশের তৎপরতা। কঠোর লকডাউন’ কার্যকর করার জন্য চন্দনাইশ পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ হতে বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে তাদের অভিযান। গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় চেকপোস্টেের মাধ্যমে গাড়ি থামিয়ে যাত্রীদের পরিচয় এবং রাস্তার বের হবার কারণ জিজ্ঞেস করা হচ্ছে। যেসব পেশার মানুষ জরুরি সেবার সাথে সম্পৃক্ত তাদের অতিক্রম করার অনুমতি দিয়ে অন্যদের ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে বাড়ির দিকে। এই সময় পুলিশের পক্ষ থেকে চট্টগ্রাম দক্ষিণ এর এডিশনাল এসপি কবির আহমদ বলেন, আজ থেকে কঠোর লকডাউন কার্যকর করতে সরকার যে নির্দেশনা দিয়েছে তা বাস্তবায়নে করতে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। সর্বাত্মক বিধিনিষেধ চলাকালীন জরুরি প্রয়োজনে চলাচলের জন্য ‘মুভমেন্ট পাস’ চালু করা হয়েছে। তাই আজ থেকে লকডাউনে বিশেষ কয়েকটি কারণে এবং পুলিশের দেয়া ‘মুভমেন্ট পাস’ ছাড়া এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যাওয়া যাবে না। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় এর আগে গত ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা পর্যন্ত লকডাউন বা বিধিনিষেধ ছিল। তবে গণপরিবহন, মার্কেট খোলা রেখে এই লকডাউন ছিল অনেকটাই অকার্যকর। লকডাউন পালনে সবার সহযোগিতা চেয়ে চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ নাছির উদ্দিন সরকার বলেন, আমরা আজ থেকে বিনা প্রয়োজনে রাস্তাঘাটে কাউকে দেখতে চাই না। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ দিন দিন যেভাবে বেড়েই চলছে সরকারি নির্দেশনা আমরা না মানলে সমগ্র বাংলাদেশকে আইসোলেশন সেন্টারে পরিণত করতে হবে। গত বছর পুলিশ করোনা পরিস্থিতি যেভাবে নিয়ন্ত্রণ করেছে, এবারও করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ সেভাবেই নিয়ন্ত্রণ করার জন্য চন্দনাইশ থানা পুলিশ মাঠে নেমেছে। তাই করোনায় এই দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো লেখা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
shuvo
%d bloggers like this: