রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
চট্টগ্রামব্যাপি দৈনিক প্রিয় চন্দনাইশে নিয়োগ চলছে ।আজই আপনার সিভি আমাদের মেইল করুন । আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ।

বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্টের মেয়রপ্রার্থী এম এ মতিনের স্মারকলিপি প্রদান

মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম রুবেল (বার্তা সম্পাদক)
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২৪৩ জন পড়েছেন

বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্টের মেয়রপ্রার্থী এম এ মতিনের স্মারকলিপি প্রদান

চসিক নির্বাচন পেছানোর দাবিতে আজ ২২ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রিটার্নিং অফিসার চট্টগ্রামের মাধ্যমে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত মেয়র প্রার্থী মাওলানা এম এ মতিন। স্মারকলিপি প্রদানকালে সাংবাদিকদের বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মহাসচিব জননেতা এম এ মতিন বলেন- গত ২৯ মার্চ চসিক নির্বাচনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হলেও করোনা মহামারির সমূহ ভয়াবহতা আঁচ করতে পেরে মেয়রপ্রার্থীদের মধ্যে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী সর্বপ্রথম নির্বাচন স্থগিত করতে লিখিতভাবে আবেদন করে। এরপর অন্য প্রার্থীরা দাবিটা নিয়ে সরব হয় এবং লিখিত আবেদন করে। আমাদের যৌক্তিক দাবিকে মেনে নিয়ে সেসময় নির্বাচন কমিশন চসিক নির্বাচন স্থগিত করে দেয়। বাণিজ্যিক রাজধানীর ভোটারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় যা ছিল সময়োচিত পদক্ষেপ। তিনি বলেন, গত মার্চে চসিক নির্বাচন স্থগিত করার জন্য আমরা যখন আবেদন করেছিলাম তখনও চট্টগ্রামে করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি। এখন সারাদেশে করোনা আক্রান্ত রোগী প্রায় পাঁচ লক্ষ এবং সরকারী হিসেবে মারা গেছে সাত সহ¯্রাধিক। এর সাথে দেশব্যাপী চলছে শৈত্যপ্রবাহ। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে শীত ও করোনার প্রকোপ- দুটোই ক্রমশ: বাড়ছে। করোনার ২য় ঢেউ শুরুর পর হতে নতুন করে প্রত্যেকদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ও মৃত্যুহার। সতর্কতাস্বরুপ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা আসন্ন শীতে করোনার জন্য সর্তকতা জারি করে যাচ্ছেন। মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা করার জন্য সরকার সবাইকে প্রস্তুতি নেওয়ার আহবান জানাচ্ছেন এমতাবস্থায় ২৭ শে জানুয়ারী প্রচন্ড শীতের মাঝে পুনরায় নির্বাচনের তারিখ ঘোষনাটা জনগনের কাছে অবিবেচক সিদ্ধান্ত হিসেবে বিবেচিত হবে। যে কারনে নির্বাচন স্থগিত হয়েছিলো সে কারনটি এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি বিদ্যমান। মেয়রপ্রার্থী এম.এ মতিন আরো বলেন-আমরা দেশবাসী, শুভাকাঙ্খী, ভোটার ও নেতাকর্মীদেরকে একটি নিশ্চিত মহামারির মুখোমুখি দাড় করাতে পারিনা। তাই তিনি নির্বাচনে জড়িত কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষকদের সুরক্ষা, দলীয় নেতাকর্মীদের জীবন রক্ষা, সর্বোপরি ভোটারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থে চসিক নির্বাচনের তারিখ আগামী ২৭ জানুয়ারির পরিবর্তে আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের পর পূণ:নির্ধারণ করার জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে আহ্বান জানান। স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ স উ ম আবদুস সামাদ, অধ্যাপক সৈয়দ জালাল উদ্দিন আজহারী, রেজাউল করিম তালুকদার, ইঞ্জি: মুহাম্মদ নূর হোসাইন, মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম জিহাদী, ওবাইদুল মোস্তফা কদমরসুলী, নাসির উদ্দীন মাহমুদ, ইয়াছিন হোসাইন হায়দরী, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, অধ্যক্ষ ডি.আই.এম জাহাঙ্গীর, হাবিবুল মোস্তফা সিদ্দিকী, মুহাম্মদ নুরুল্লাহ রায়হান খান, মুহাম্মদ আবদুল করিম সেলিম, মাওলানা সোহাইল উদ্দিন আনসারী, আবু তৈয়ব মুহাম্মদ রেজাউল মোস্তফা, শাহজাহান বাদশা, নূরে রহমান রনি, গোলাম মোস্তফা, রিদওয়ান সাজ্জাদ, আমির হোসাইন, মুহাম্মদ আরাফাত, নূর রায়হান চৌধুরী, মুহাম্মদ মাহফুজ প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো লেখা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
shuvo
%d bloggers like this: