বেগম রোকেয়া দিবস-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পল্লী সমাজের ৪ বিজয়ী জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

চন্দনাইশ

বেগম রোকেয়া দিবস-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পল্লী সমাজের ৪ বিজয়ী জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ’ কার্যক্রমে ২০১৯-২০ অর্থবছরে চন্দনাইশ উপজেলায় মনোনয়নপ্রাপ্ত ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচির আওতায় পল্লী সমাজের ৪ জয়িতা সদস্য হলেন দিল আরা খানম (সফল জননী জয়িতা), জান্নাতুল নুর পপি (সেলাই কাজ করে অর্থৈনিক স্বাবলম্বী জয়িতা), আয়শা আকতার জিহাদী( নির্যাতিত মহিলা বিভীষিকা মুছে নতুন পথে পথ চলার কাণ্ডারি জয়িতা), আবছারা বেগম (সমাজ উন্নয়নে অসীম কৃতিত্ব জয়িতা)। চন্দনাইশ উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তার অধীনে কমিটির যাচাই-বাছাইয়ের পর সফল হিসাবে তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে।
গত ৯ ডিসেম্বর সকালে উপজেলা অডিটোরিয়াম হলে বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে নির্বাচিত এই জয়িতাদের পুরস্কৃত করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চন্দনাইশ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জাফল আলী হিরু। এই সময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইমতিয়াজ হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পল্লী প্রগতি সংস্থার চেয়ারম্যান নুরুল হক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন থানা অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো.মজনু মিয়া, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রতন কুমার সাহা,মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা গীতা চৌধুরী, ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচির এফ ও (সি ই পি) মো.নজরুল ইসলাম, ব্র্যাক প্রগতি কর্মসূচি সিও রিপন হোসেন, ই এইচ সি-পি এ ইয়াছিন উদ্দিন রাব্বি প্রমুখ।
এই সময় অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,নারী জাগরণে ও নারীর অধিকার আদায়ের আন্দোলনে বেগম রোকেয়ার ভূমিকা অবিস্মরণীয়। বেগম রোকেয়ার মতো মহিয়সী নারীদের অসীম পরিশ্রম ও ত্যাগের কারণেই আজ নারীরা জ্ঞান-বিজ্ঞান, শিক্ষা-দীক্ষায় অনেক অগ্রসর হচ্ছে। শিক্ষার অধিকার বঞ্চিত নারীদের শিক্ষার জন্য তিনিই সর্বপ্রথম সচেতন করে তুলেছিলেন। তার জন্যই আজ নারী সমাজ শিক্ষাসহ সবক্ষেত্রে সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে। রোকেয়ার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে শিক্ষা-দীক্ষায় আলোকিত হয়ে দেশ গড়ার কাজে আজকের নারীদের অবদান রাখার আহবান জানান বক্তারা। তাই নারীদের অধিকার আদায়ের আন্দোলনে বেগম রোকেয়ার অবদান জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে।

Leave a Reply