চন্দনাইশে জশনে জুলুস ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (দ:) পালিত

চন্দনাইশ

চন্দনাইশে জশনে জুলুস ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (দ:) পালিত

বিশ্ব মানবতার মুক্তির অনন্য দিশারী, রহমাতুল্লিল আলামীন, শাফিউল মুজনাবিন হযরত মুহাম্মদ মুস্তাফা (দ:) এর পৃথিবীতে শুভ আগমন উপলক্ষে চন্দনাইশে হযরত শাহ আমিনুল্লাহ জুলুস কমিটি উদযাপন পরিষদের এর ব্যবস্থপনায় পবিত্র জশনে জুলুছে ঈদে মিলাদুন্নবী (দ:) উদযাপন করা হয়েছে। এতে নবী প্রেমিক প্রায় ৫ হাজার মানুষের অংশগ্রহনে আজ ( ২৪ অক্টোবর) শনিবার সকালে জশনে জুলুছ হযরত আমিনুল্লাহ শাহ মাজার শরীফ থেকে গাছবাড়িয়া, খাঁনহাট, নয়াহাট,চন্দনাইশ পৌরসভা দিয়ে পুনরায় মাজার শরীফের মাঠে এসে শেষ হয়।
পরে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ চন্দনাইশ পৌরসভার সাবেক সভাপতি জাহাগীর মুহাম্মদ আবদুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এই সময় উপস্থিত ছিলেন চন্দনাইশ উপজেলার ভাইচ চেয়ারম্যান মাওলানা সোলাইমান ফারুকী, পূর্ব ছৈয়দাবাদ সুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবুল কাশেম আনছারী, মক্কা আওয়ামী ফাউন্ডেশন সৌদি আরবের সভাপতি আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক, গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ চন্দনাইশ পৌরসভার সাবেক সাধারন সম্পাদক বেলাল উদ্দীন চৌধুরী, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিনের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর ইসলাম বঈদী, বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্ট নেতা আলহাজ্ব সোহেল উদ্দীন আনচারী, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত চন্দনাইশ পৌরসভার সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ ফারুক বাহাদুর, জুলুস কমিটির আহবায়ক মাওলানা ছৈয়দুল হকসহ জুলুস উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ, গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্ট, যুবসেনা,ছাত্রসেনার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এই বক্তারা বলেন, রাসূল করিম (দ:) এর পৃথিবীতে আগমন ছিল মানবতার মুক্তির জন্য। মহান আল্লাহর পরিপূর্ণ ধর্ম দ্বীন ইসলামকে রাসূল করিম (স.) এর মাধ্যমে মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন। মানবতার মুক্তির জন্য রাসূল (স.) অগ্রদূত হিসেবে কাজ করেছেন। পবিত্র কোরআন ও হাদিস শরীফ চর্চার মাধ্যমে দ্বীন ইসলামকে ধরে রাখার জন্য তিনি আমাদের কাছে রেখেগেছেন। মহান রবিউল আউয়াল মাস ও ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) পালনের মাধ্যমে দ্বীন ইসলামের অনুসারিদের আলোকিত জীবনের অধিকারী হতে হবে। পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) আমাদের জন্য মহা নেয়ামত।

Leave a Reply